...
ই-নলেজ অতিক্রম করলো লক্ষাধিক সদস্যের এক বিশাল মাইলফলক!বিস্তারিত...
person
!
প্রোফাইল আপডেট

বিয়ের আগে প্রেম/ভালোবাসা হারাম এর কোন দলিল আছে.?

-:বিজ্ঞাপনের স্থান:-
ই-নলেজ এ বিজ্ঞাপন দিতে চান? - যোগাযোগ করুন।
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (জ্ঞানী) (502 পয়েন্ট)   216 বার প্রদর্শিত

লিংক কপি হয়েছে!



2 উত্তর

2 পছন্দ 0 অপছন্দ

বùãËর আË পÑরËম/ভালÏবাসার সমÑপরÑó àË তÏলা ইসলামী দৃষÑটùতË বÌধ নã এই জনÑয যË, ইসলামী বùধù-বùধান অনুযাãী óÏন পরনারী óÏন পরপুরুষËর সানÑনùধÑযË আসতË পারË না। এমন óù দËôা/সাóÑষাÒ বা ÷Ïন, নËট ইতÑযাদùর মাধÑযমË óথা বলাñ যাবË না। ইসলামী দৃষÑটùতË এুলÏ এó পÑরóার যùনা বা বÑযাভùøারËর মধÑযË পàË। এমনóù মনË মনË óলÑপনা óরË তৃপÑতù অনুভব óরাñ এó পÑরóার যùনা। যা হারাম এবং óবùরাহ ুনাহ।মুসলùম: ì/ííð



ইবনË আবÑবাস (রা.) হতË বরÑণùত তùনù বলËন রাসুল (সা.) বলËùËন, "óÏন পরপুরুষËর সাথË óÏন পরনারী নùরÑজনË আসতË পারË না। óÏন সÑতÑরীলÏó óÏন মাহরাম বÑযাóÑতù বÑযতীত অনÑয óারÏর সাথË স÷র óরতË পারË না।। এমন সমã এó বÑযাóÑতù জানতË øাইলËন যË, ইãা রাসুলুলÑলাহ (সা.) অমুó অমুó যুদÑধËর জনÑয আমার নাম তালùóাভুóÑত হãËùË óùনÑতু আমার সÑতÑরী হজÑজË যাবË? তôন রাসুল (সা.) বললËন তবË যাñ তুমù তÏমার নùজ সÑতÑরীর সাথË হজÑজ óর।"সহùহ বুôারù: ìñóò



আশা óরù রË÷ারËনÑসসহ যথাযথ উতÑতর পËãËùন...
ধনÑযবাদ ই-নলËজËর পাশËই থাóুন..!

উত্তর প্রদান করেছেন (পন্ডিত) (12,467 পয়েন্ট)  
সম্পাদিত করেছেন
0 পছন্দ 0 অপছন্দ
কিন্তু আল্লাহ তা’আলা বলেন,

.
وَلَا تَقْرَبُوا ٱلزِّنَىٰٓۖ إِنَّهُۥ كَانَ فَٰحِشَةً وَسَآءَ سَبِيلًا
.
'আর যিনা-ব্যভিচারের কাছেও যেও না, তা হচ্ছে অশ্লীল কাজ আর অতি জঘন্য পথ'। (সুরা বনী ইসরাঈল- ৩২)
.
এখানে যিনা-ব্যভিচার করা তো দূরের কথা এর ধারে কাছেও যাওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। সুতরাং আমরা যে যতই যুক্তি দেখাই সব কিছুর জন্য কুর’আনের এই একটি আয়াতই যথেষ্ট। এখানে আর কিছু বলার আছে বলে মনে হয় না। আর তাছাড়া আপনি যাই বলুন না কেন, হারামকে হালাল করতে পারবেন না। যা হারাম তা সকল অবস্থাতেই হারাম। আর ইবাদাত যদি আল্লাহর সন্তুষ্টিরর জন্য হয়, তাহলে এইসব লেইম এক্সকিউজের তো দরকারই পড়েনা।
.
অনেকে আবার বলেন সবই তো জানি, বুঝি কিন্তু এত ভালোবাসি যে ফিরে আসতে পারিনা। তাহলে বলবো এইসব ভালোবাসার থেকে আমার রবের ভালোবাসা অনেকদামী। কুর’আনুল কারিমে আল্লাহ তা’আলা বলেছেন:
.
'আর যারা বিশ্বাসী তাঁর আল্লাহকে অন্য সবকিছুর চেয়ে বেশি ভালবাসে'। (সুরা বাকারাহ, ১৬৫)
.
তাঁর ভালোবাসার সামনে দুনিয়াবি এইসব নকল, নোংরা ভালোবাসার আদৌ কি কোন মুল্য আছে?? বরং এইটাতে শুধু মনের শান্তি নষ্ট হয়ে যায়। অন্তর তাঁর স্মরণ থেকে গাফেল হয়ে যায়।
.
এ সম্পর্কে আল্লাহ তা’আলা বলেন, যে আমার স্মরন হতে মুখ ফিরাবে, তার জন্য রয়েছে সংকীর্ণ জীবন। (সুরা ত্বহা-১২৪)
উত্তর প্রদান করেছেন (জ্ঞানী) (502 পয়েন্ট)  
আপনার কোথাও একটা ভুল হচ্ছে আমিও একি কথা বলেছি যে, বিয়ের আগে প্রেম-ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলা ইসলামি দৃষ্টিতে হারাম এবং এক প্রকার যিনা ও ব্যভিচার।। আপনি কুরআন থেকে রেফারেন্স দিয়েছেন আর আমি হাদিস থেকে রেফারেন্স দিয়েছি।
মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (পন্ডিত) (12,467 পয়েন্ট)  

সংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
"প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন রাণী (নবীন) (16 পয়েন্ট)  
1 উত্তর
"আইকিউ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন জিসান রাজ (গুণী) (250 পয়েন্ট)  

18,599 টি প্রশ্ন

19,479 টি উত্তর

2,572 টি মন্তব্য

102,942 জন সদস্য

ই-নলেজ কুয়েরি বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য ওয়েবসাইট। এখানে আপনি প্রশ্ন-উত্তর করার মাধ্যমে নিজের সমস্যার সমাধানের পাশাপাশি দিতে পারেন অন্যদের সমস্যার নির্ভরযোগ্য সমাধান! বিভিন্ন ব্যক্তিগত সমস্যা, পড়ালেখা, ধর্মীয় ব্যাখ্যা, বিজ্ঞান বিষয়ক, সাধারণ জ্ঞান, ইন্টারনেট, দৈনন্দিন নানান সমস্যা সহ সকল বিষয়ে প্রশ্ন-উত্তর করতে পারবেন! প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে বাংলা ভাষায় উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য!
তাই আজই যুক্ত হোন ই-নলেজে আর বাড়িয়ে দিন আপনার জ্ঞানের গভীরতা...!
Empowering Novel Learners with Zeal (Enolez)


  1. Sadik Prottay

    6 পয়েন্ট

    0 টি উত্তর

    0 মন্তব্য

    1 প্রশ্ন

  2. Mohammad Atik

    5 পয়েন্ট

    0 টি উত্তর

    1 মন্তব্য

    0 টি প্রশ্ন

  3. MdAUKhan

    4 পয়েন্ট

    1 উত্তর

    0 মন্তব্য

    0 টি প্রশ্ন

  4. Shompa

    1 পয়েন্ট

    0 টি উত্তর

    0 মন্তব্য

    1 প্রশ্ন

  5. রমজান

    1 পয়েন্ট

    0 টি উত্তর

    0 মন্তব্য

    1 প্রশ্ন

...